ছাত্রীদের যৌন নিগ্রহের অভিযোগ কলকাতার স্কুলে

কলকাতা শহর - আবারও স্কুল থেকে যৌন হেনস্তার অভিযোগ । নতুন করে আবারও কলকাতার এক স্কুল ছাত্রীর যৌন নিগ্রহের অভিযোগ । আবারও অভিযুক্ত এক স্কুল শিক্ষক by Wb News Info (WBNI)

কলকাতা শহর ঃ

আবারও স্কুল থেকে যৌন হেনস্তার অভিযোগ । নতুন করে আবারও কলকাতার এক স্কুল ছাত্রীর যৌন নিগ্রহের অভিযোগ । আবারও অভিযুক্ত এক স্কুল শিক্ষকদিন মঙ্গলবার, দক্ষিন কলকাতায় এই ঘটনাটি ঘটেছে ঢাকুরিয়ার একটি স্কুলে । স্কুল উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে এই সব অভিযোগকে কেন্দ্র করে । পুলিশ লাঠি চালায় আভিভাবকদের বিক্ষোভে । বিনা প্ররোচনায় লাঠি চালানোর অভিযোগ পুলিশের বিরুদ্ধে । ব্যাপক পরিমাণে লাঠিচার্জ করে পুলিশ । নির্বিশেষে পুরুষ , মহিলা কেউকে বাদ দেয়নি । এমনকি মাথা ফাটার অভিযোগ এক মহিলার । ইতিমধ্যেই আটক করেছে পুলিশ অভিযুক্ত শিক্ষককে

 

মঙ্গলবার সকাল থেকেই কলকাতার ঢাকুরিয়ার বিনোদিনী স্কুলে এক ছাত্রীর যৌন নিগ্রহের অভিযোগে উত্তাল হয়ে ওঠে । স্কুলে অভিভাবকরা বিক্ষোভ দেখতে শুরু করেন । এবং পুলিশে খবর দেওয়া হল । স্কুলে পুলিশ ঢুকতেই উত্তপ্ত হয়ে ওঠে পরিস্তিত আরও । তারপরই ধস্তাধস্তি শুরু হয়ে যায় পুলিশ ও আভিভাবকদের সাথে । খুব বাজে কাণ্ড শুরু হয়ে যায় পুরো স্কুল জুড়ে ।

 

গ্রেফতার করা হয়েছে অভিযুক্ত শিক্ষককে । আভিভাবকরা বিক্ষোভ থামাননি তদন্ত করে দেখা হবে শুনেও । তারপরেই পুলিশের বিরুদ্ধে লাঠি চালানোর অভিযোগ ওঠে নির্বিচারে । লাঠি চালানোর অভিযোগে উত্তাল হয়ে ওঠে স্কুল চত্বর এবং নির্বিচারে লেক থানার পুলিশ কর্মীদের বিরুদ্ধে । পুলিশের লাঠির আঘাতে মাথা ফেটে যায় এক অভিভাবকের । রক্তাক্ত অবস্তায় তাকে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয় এলাকা থেকে । বেশ কয়েকজন অভিভাবক আহত হয়েছেনপুলিশ কর্মীদের মধ্যে তিনজন আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে ।

 

পুলিশকর্তাদের অভিযোগ পুলিশের গায়ে হাত তোলার জন্য আভিভাবকদের বিরুদ্ধে । পুলিশের অভিযোগ স্কুলের আশেপাশের বাড়ি থেকে ইট ছোড়া হয়েছে । গোটা এলাকা উত্তপ্ত হয়ে রয়েছে এখনো । বিশাল পুলিশ বাহিনি আপাততঃ গোটা এলাকা ঘিরে রয়েছে ।

 

এর আগেও যৌন নিগ্রহের প্রতিবাদে অভিভাবকদের বিক্ষোভে কলকাতার ৩ থেকে ৪টি স্কুলে উত্তাল হয়ে ওঠে । কিন্তু এইভাবে পুলিশের লাঠি চালানোর ঘটনা প্রথম । সবচেয়ে বেশি সমস্যায় পরে পড়ুয়ারা । তারা স্কুলের ভেতরেই আটকে পরে অভিভাবকদের বিক্ষোভের জন্য । তাদের পরে বাড়ি পাঠানোর ব্যবস্তা করে পুলিশ

 

শিক্ষকের পাশাপাশি ৩ জনকে ধরা হয়েছে অভিযুক্ত শেষ সংবাদ পাওয়া পর্যন্ত । পুলিশ খতিয়ে দেখেছেন তারা অভিভাবক কিনা । এই ঘটনায় লেক ও গরিয়াহাট থানার দুই ওসি আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে । এখনও স্কুলটিকে বিশাল ভাবে ঘিরে রয়েছে পুলিশ বাহিনি । জানা গেছে ডাক্তারি পরিক্ষা করা হবে ছাত্রি স্বাভাবিক হলে । পুলিশের বড়কর্তারা স্কুলে যান কি কারনে ঘটনা ঘটলো তা দেখতে । পুলিশ জেরা করেছে অভিযুক্ত শিক্ষককে

 

WBNI-এর দায়িত্ব পশ্চিমবাংলার A TO Z খবর আপনাদের কাছে পৌঁছে দাওয়া । ১টি কথা মনে রাখবেন WBNI যে খবর তুলে ধরে সেই সব খবর, হয় সব থেকে আধুনিক না হয় থেকে সব থেকে আগে । বেশি জানতে ওয়েবসাইটি আরও ভালো করে চেক করুন এবং আরও নতুন নতুন খবর জানতে এখুনি ইমেইল সাবমিট করুন WB NEWS INFO (WBNI)-এর ওয়েবসাইটে । আর এই খবরটি জেনে আপনাদের কি মতামত সেটাও জানাবেন আমাদের কমেন্ট বক্সে কারন পশ্চিমবঙ্গের মানুষ কি জানাতে চায়, কি বলতে চায় সেটা জানাও WBNI-এর কাছে খুবই গুরুত্বপূর্ণ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *